1. info@shikorsongbad.com : শিকড় সংবাদ :
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১০:৩৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
বুয়েটে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেন কচুয়ার মেধাবী ছাত্র তুহিন কচুয়ার কাদলা ইউনিয়নে ভোটার হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু ৪০ বছরের সম্পত্তিগত বিরোধ নিষ্পত্তি করলেন কাদলা ইউপি চেয়ারম্যান নুরে-ই আলম রিহাত কচুয়ায় সাংবাদিক শান্তুু ধরে’র মায়ের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী পালিত টানা ৩৪ বছর কর্মজীবন শেষ করে অবসরে যাচ্ছেন জনতা ব্যাংকের সিনিয়র কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন কচুয়ার সাচারে রথযাত্রাকে সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ন করার লক্ষে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা কচুয়ার কৃতি সন্তান আবু ছালেহ বিআইডব্লিউটিএ’র সহকারী সমন্বয় কর্মকর্তা হিসেবে পদোন্নতি কচুয়ায় কাদলা ইউনিয়ন নেতাকর্মীদের সাথে সোহেল ভূঁইয়ার মতবিনিময় কচুয়া উপজেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক কমিটি গঠন কচুয়ায় গরু খামারের সফল উদ্যোক্তা জিয়া উদ্দিন মজুমদার

জোর করে জমি রেজিস্ট্রির অভিযোগে ফেনীতে এসআই ক্লোজ

জেলা প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩৯ বার পড়া হয়েছে

ফেনীতে অস্ত্র ও মাদক মামলার ভয় দেখিয়ে নজরুল নামে এক ব্যবসায়ীর জমি, ফ্ল্যাটসহ ব্যাংকের টাকা অন্য ব্যক্তিকে নিয়ে দেওয়ার অভিযোগে ছাগলনাইয়া থানার এসআই আলমগীর হোসেনকে ক্লোজ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের এক নোটিশে এই ক্লোজ আদেশ দেওয়া হয়। ছাগলনাইয়া থানার পরিদর্শক মেজবাহ উদ্দিন বাংলা ট্রিবিউনকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। ক্লোজ করা এসআইকে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী পরিবারের লোকজন জানান, জেলার ফুলগাজি উপজেলার বাসিন্দা ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম ১৩ সেপ্টেম্বর পুলিশ সদর দফতর ও জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক লিখিত অভিযোগ দেন।

অভিযোগে তিনি বলেন, অস্ত্র ও মাদক মামলার ভয় দেখিয়ে ছাগলনাইয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মেজবাউল হায়দার চৌধুরী সোহেল’সহ এলাকার কয়েকজন জনপ্রতিনিধি ও পুলিশের এসআই আলমগীর তার কাছে মোটা অংকের টাকা দাবি করে। তিনি তা দিতে না চাইলে ১৭ জুন পরিবারের সবাইকে জিম্মি করে জমি, ফ্ল্যাটের, গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র, স্বর্ণালংকার, টিভি, ফ্রিজসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায় তারা।

এই ঘটনার পর দিন ১৮ জুন ভোরে তার নিকট আত্মীয় আরিফিন আজাদ বাদলকে নিয়ে ফের নজরুলের বাড়িতে তারা হানা দেয়। পরে তাকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে উক্ত উপজেলা চেয়ারম্যানের বাড়িতে আটকে রাখে । সেখান থেকে তাকে ছাগলনাইয়া থানায় কর্মরত এসআই আলমগীরে কাছে সোপর্দ করা হয়। ওই জনপ্রতিনিধির কথা মতো এসআই আলমগীর’সহ কয়েকজন নজরুলকে প্রাইভেটকারে তুলে নিয়ে ঢাকার কেরানীগঞ্জ সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে নিয়ে আসে। সেখানে নজরুলের নামে থাকা বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার সাড়ে ৬ কাঠার জমিটি রেজিস্ট্রি করে নিয়ে যায়।

এ সময় নজরুলের ব্যবসায়ীক লাইসেন্স হস্তান্তরের অঙ্গীকারনামাসহ ৮-১০টি সাদা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে নেয়। পরে এসআই আলমগীরসহ জড়িতরা কৌশলে ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়েন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলা পুলিশের এক ঊধ্বর্তন কর্মকর্তা এই প্রসঙ্গে বলেন, ব্যবসায়ী নজরুলের অভিযোগ নিয়ে জেলা পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। তদন্তের স্বার্থে এস আই আলমগীর হোসেনকে ক্লোজ করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
Theme Customized BY LatestNews
error: Content is protected !!